মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়ার অংশগ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আইনগতভাবে নেওয়া হবে—সিইসি

ফাইল ছবি

ঢাকাঃ
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত আইনানুগভাবে পরীক্ষা করে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

বুধবার (২ নভেম্বর) দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া আগামী বছরের ডিসেম্বরে বা ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে সিইসির মতামত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের কিছু আইনি কাঠামো আছে’।

তিনি আরও বলেন, ‘ওই দিক থেকে অবস্থান কী হবে, আমরা এখনো জানি না। আমরা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না’।

মনোনয়নপত্র জমা দিলে কী হবে জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘আইন অনুযায়ী তা যাচাই করা হবে’।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনেও তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করলেও তা বাতিল হয়ে যায়। বিষয়টি সাংবাদিকরা তুলে ধরলে সিইসি বলেন, ‘আমরা বলেছি আইনগতভাবে যাচাই-বাছাই করে দেখব। প্রয়োজন হলে আইনি তদন্ত করব’।

২০১৮ সালের সাধারণ নির্বাচনে ফেনী-১, বগুড়া-৬ ও ৭ আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন খালেদা জিয়া। রিটার্নিং কর্মকর্তারা দুর্নীতির মামলায় তাঁর সাজার কথা উল্লেখ করে মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।

পরে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করা হলে তাও খারিজ করে দেয় তৎকালীন কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশন।

সো/আ

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়