বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

ঋণের চাপে দুই সন্তানকে হত্যার করে মায়ের আত্মহত্যা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঋণ করে স্বামীকে বিদেশ পাঠান। ধীরে ধীরে সেই ঋণ বিশাল আকার ধারণ করে। নিয়মিত ঋণ পরিশোধে বিভিন্ন এনজিওর চাপ সহ্য করতে না পেরে দুই সন্তানকে হত্যার পর মা আত্মহত্যা করেছেন।

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে কেয়াইন ইউনিয়নের উত্তর ইসলামপুর গ্রামে ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে এ ঘটনা ঘটেছে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বসতঘর থেকে মা ও দুই সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করছে। নিহতরা হলেন- মা সায়মা বেগম (৩৩), তার কন্যা সন্তান ছাইমুনা (১১) ও পুত্র সন্তান তাওহীদ (৭)। নিহত সায়মার স্বামী সৌদি আরব প্রবাসী।

মরদেহ উদ্ধারের পর সিরাজদিখান থানা পুলিশ ধারণা করছে, প্রথমে দুই সন্তানকে বিষপানে মৃত্যু নিশ্চিত করে মা। পরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। ঋণের বোঝা সহ্য করতে না পেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়দের জানান , একাধিক এনজিও থেকে আট লাখ টাকার মতো ঋণ করেছিলেন সায়মা বেগম। সুদে আসলে তা বেড়ে ১২ লাখ হয়। ঋণ পরিশোধে চাপ থাকলেও স্বামীর পাঠানো অর্থে কিস্তি দিয়ে কূল পাচ্ছিলেন না ভুক্তভোগী ওই নারী।

এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান রিফাত বলেন, ঋণের চাপে দুই সন্তানকে হত্যার পর মা আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো যাবে।

দেশ জার্নাল /সো আ (ঢা প্র)

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----