সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতা সজিব হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

 

মুজাহিদুল ইসলাম ,বিশেষ প্রতিনিধি(লক্ষ্মীপুর)ঃ

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে হামলার শিকার হওয়া ছাত্রলীগ নেতা এম সজিব চিকিৎসাধীন অবস্থা মারা গেছেন। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ২টার দিকে ঢাকার পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুর খবরে সজিবের ছাত্র লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে নেমে আসে শোকের ছায়া।

বুধবার বিকেল ৫ টার দিকে ছাত্রলীগ নেতা নিহত এম সজিব হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে রায়পুর উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে।

এসময় ছাত্রলীগ নেতারা সজিব হত্যায় জড়িত সবাইকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রায়পুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক হুমায়ুন কবির ও সুমন হাওলাদার, রায়পুর পৌর লীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক তানভীর আহমেদ পাটওয়ারী, কলেজ ছাত্র লীগের সাবেক আহবায়ক শরিফ হোসেন সহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাতে চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের পাঁচপাড়া গ্রামে যৈদের পুকুর পাড় এলাকায় দুর্বৃত্তদের অতর্কিত হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা সজীব, সাইফুল পাটওয়ারী, মো. রাফি ও সাইফুল ইসলাম জয় আহত হয়। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দিবাগত রাত ২ টার দিকে ঢাকার পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সজীব মারা যান। এর আগে সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাতে সজীবের মা বুলি বেগম বাদী হয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কাজী বাবলুকে প্রধান করে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। এতে আরও ২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়। চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার দ্বিতীয় আসামি চন্দ্রগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব তাজুল ইসলাম তাজু ভূঁইয়াসহ ৪জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা জেলা কারাগারে রয়েছেন। নিহত সজীব চন্দ্রগঞ্জের পাঁচপাড়া এলাকার মৃত সিরাজ মিয়ার ছেলে ও চন্দ্রগঞ্জ কফিল উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন।

এস.এম /দেশ জার্নাল

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----