বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

পুলিশের বেরিকেটে বিএনপির মিছিল লণ্ডভণ্ড 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
লক্ষ্মীপুরের জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিকে গ্রেফতার, নির্যাতনের প্রতিবাদ ও মুক্তির দাবিতে রায়পুর উপজেলা  ও পৌর বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ নিয়ে বের হলে পুলিশের বেরিকেটে সে মিছিল রুখে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন উপজেলা  যুবদলের সাবেক সভাপতি   শফিকুল আলম আলমাস।
১৫ অক্টোবর (রবিবার)  বিকেল ৩:৪০ মিনিটের সময় উপজেলা বিএনপি ও পৌর বিএনপি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির মুক্তির দাবিতে পৌর বাসস্ট্যান্ডের সামনে থেকে এ বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বের হওয়ার চেষ্টা করেন নেতারা।
এবিষয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম মিঠু বলেন,  আমদের মজলুম নেতা এ্যানি কে যেভাবে রাত দেড়টার সময়ে গ্রেফতার করেছে তা ইতিহাসের পাতায় জঘন্য তার মুক্তির দাবিতে এবং বিএনপি নেতা আবুল খায়ের ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট মামলার প্রতিবাদে আজকের বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে কিন্তু পুলিশের বেড়িকেট থাকায় আমরা সে মিছিল করতে পারিনি।  আমাদের ইউনিয়ন বিএনপির নেতা মিজান, কামাল ফারুকের সহ মোট চারজন আ’লীগের হামলার শিকার হয়েছে তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে এখন বাড়িতে আছেন।আমরা অবিলম্বে বন্দী সকল বিএনপি নেতাদের মুক্তি চাই।
বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, “রাতের অন্ধকারে দরজা ভেঙে বিএনপি নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিকে গ্রেফতার করেছে  পুলিশ। পরে থানায় নিয়ে নির্যাতন করা হয়েছে যা কোনো সভ্য সমাজে কাম্য নয়।  অবিলম্বে শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিসহ সকল বন্দী বিএনপি নেতাদের  মুক্তি না দিলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তারা।”
অপর দিকে একই সময়ে রায়পুর উপজেলা আ’লীগ ও পৌর আ’লীগ বিএনপির মিছিলকে রুখতে  রায়পুর উপজেলার বিভিন্ন অলিতে-গলিতে মিছিল করেছেন নেতারা। এসময়ে নেতারা বিএনপির আস্থানা জ্বালিয়ে দাও পুড়িয়ে দাও বলে মিছিল করার সময় বিএনপির ব্যানার  ভাঙচুর করেন।
এবিষয়ে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  শিপন বড়ুয়াকে মুঠোফোনে জানতে চাওয়া হলে সে বিজি বলে ফোন কেটে দেন।

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----