বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

মানবতার কল্যাণে কাজ করা এক তরুণ যুবক মীর মাসুদ

 

নুরুল আমিন ভূইয়া দুলাল, নিজস্ব প্রতিবাদক

রায়পুর পৌর শহরের এক নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মীর মাসুদ অত্যন্ত সদয় সাবলীল শান্ত ও কোমল হৃদয়ের একজন প্রতিভাবান তরুণ।তিনি পৌরস্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ন আহবায়ক ও রায়পুর ব্লাড ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক। এই তরুণ বয়সেই মানব সেবায় রায়পুর উপজেলায় নিজেকে একজন পরোপকারী তরুণ যুবক হিসেবে জনগণের মাঝে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন। বর্তমানে রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হতে যাচ্ছে। সম্মেলন উপলক্ষে তিনি পৌর এক নং ওয়ার্ডের একজন সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে নিজেকে পার্টি হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

দলীয় কর্মকাণ্ডে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে পরিচ্ছন্ন রাজনীতি করতে তিনি ভালোবাসেন। ইতিমধ্যেই তিনি মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

রায়পুর পৌর শহরের স্বেচ্ছায় রক্তদানের জন্য গড়ে তুলেছেন রায়পুর ব্লাড ব্যাং। মানুষের পাশে থাকতে গড়ে তুলেছেন এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। রক্তদানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তাঁরা ছুটে বেড়ান মানুষের জীবন বাঁচাতে। এমনও হয়েছে রোগীর নামধাম জানেন না, রক্ত দিয়ে চলে এসেছেন। এ রকম একটি সংগঠন—রায়পুর ব্লাড ব্যাংক। এই সংগঠনটি ইতিমধ্যে অনেক খ্যাতি অর্জন করেছে। তরুণ বয়সে এই মীর মাসুদ এখন সবার কাছে গ্রহন যোগ্য পরোপকারী ব্যক্তি হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। রুগিদেরকে বিশেষ বিশেষ সময় রক্ত দিতে গিয়ে দেখেছি রোগীর স্বজনদের মুখের হাসি। একটা সময় চিন্তা করলাম, নিজেদের একটা প্ল্যাটফর্ম দরকার। এরপর সবার সঙ্গে আলোচনা। অবশেষে রায়পুর ব্লাড ব্যাংকের যাত্রা শুরু। রোগীদের ’এত চাহিদা সামাল দেন কীভাবে? প্রশ্ন করলে মুখে হাসি টেনে মীর মাসুদ বলেন, ‘আমাদের প্রতি মানুষের প্রত্যাশা এখন অনেক বেশি। সামাল দেওয়া কঠিন বটে, তবে পারছি তো। কারণ, আমাদের বড় শক্তি ফলোয়াররা। ফেসবুকে রক্তের আহ্বান পোস্ট করলেই ফলোয়াররা যোগাযোগ শুরু করেন। এরপর আমাদের নির্দেশনা অনুযায়ী রক্তদাতা পৌঁছে যান রোগীর কাছে। অবশ্য রোগীর বিস্তারিত জেনে তারপর আমরা উদ্যোগ নিই।’ রাজনীতি নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ছাত্র জীবন থেকেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে উজ্জীবিত হই।

সেই আদর্শকে লালন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বর্তমান কর্ণধার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সিনিয়রদের সাথে কাজ করে যাচ্ছি অনবরত। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আমাদের রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগকে ডেলে সাজানো হচ্ছে। সেই লক্ষ্যকে বাস্তবায়ন করার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে নতুন করে ওয়ার্ড কমিটি গঠনের কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। সেই হিসেবে আমি রায়পুর পৌর ১ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী। সম্মানিত সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও আমার ওয়ার্ডের সকলের দোয়া ও ভালোবাসা আমার আগামী দিনের রাজনীতিতে সহায়ক হবে বলে আমি আশা করি। তাই আমি সকলের নিকট ও আমার থানা ও পৌর নেতৃবৃন্দের নিকট আবেদন থাকবে আমাকে মানবতার কল্যাণে মানব সেবায় ১ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করার আকুল আবেদন রইল।এস.এম/দেশ জার্নাল

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----