বৃহস্পতিবার, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামী ২৩ বছর পলাতকের পর র‌্যাব-১১ এর হাতে গ্রেফতার

 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুরে রায়পুরে যৌতুকের জন্য স্ত্রী আমেনা খাতুন ডলিকে হত্যার ঘটনায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত শাহজাহান মিয়া বেপারী ওরফে খোকন মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১।

২৯ মার্চ শুক্রবার রাতে র‌্যাব-১১ এর নোয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর আবদুর রাজ্জাক বিষয়টি জানান।

এর আগে শুক্রবার সকালে শরিয়তপুরের শখিপুর থানাধীন সরদারকান্দি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

খোকন মিয়া রায়পুর উপজেলার দিঘলদী গ্রামের রহিম আলী বেপারীর ছেলে। স্ত্রীকে হত্যার পর সাজা থেকে বাঁচতে ২৩ বছর ধরে পলাতক ছিলেন তিনি।

আদালত ও র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, যৌতুকের দাবিতে ২০০০ সালের ৫ ডিসেম্বর স্ত্রী আমেনাকে মাথায় আঘাত করে হত্যা করেন খোকন মিয়া। এ ঘটনায় আমেনার মা উম্মে কুলছুম বাদী হয়ে একইদিন রায়পুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে খোকনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে খোকন গ্রেপ্তার হলেও জামিনে বেরিয়ে আত্মগোপনে চলে যান। ২০১৬ সারের ২২ মার্চ তৎকালীন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সাইদুর রহমান গাজী হত্যা মামলার রায় দেন। এতে আসামি খোকনের মৃত্যুদণ্ডের রায় প্রদান করেন। একই সঙ্গে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

র‌্যাব-১১ এর নোয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর আবদুর রাজ্জাক বলেন, মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খোকনকে গ্রেপ্তারে আমরা ছায়াতদন্ত শুরু করি। অবশেষে তাকে আমরা গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা তাকে রায়পুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি।

রায়পুর থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশিকুর রহমান বলেন, শুক্রবার রাতে র‌্যাব আমাদের কাছে আসামিকে হস্তান্তর করেছেন। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

দেশ জার্নাল / সো আ

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----