সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

রায়পুরে অর্ধকোটি টাকা ব্যায়ে রাস্তা নির্মাণের কাজ করছেন আলতাফ মাস্টার

নুরুল আমিন ভূঁইয়া দুলাল,
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

লক্ষীপুর জেলার রায়পুর উপজেলা গ্রামবাসীর সহযোগিতায় ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার এর সহযোগিতায় উপজেলার ৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ড হাজীমারা টু চরকাছিয়া থেকে কানিবগারচর পর্যন্ত ৫ কিলোমিটার মাটির রাস্তা নির্মাণ কাজ মাসব্যাপী চলছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা গিয়েছে গত চারসপ্তাহ ধরে এ কাজ শুরু হয়েছে।

রাস্তা নির্মাণের কাজটি শেষ করতে আরও ১২/১৫ দিন সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলতাব হোসেন মাস্টার ।
রাস্তা নির্মাণ প্রসঙ্গে এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কাঁদা পানি দিয়ে চলাচল করতে করতে জীবনটা কেটে গেল! কিন্তু আমাদের ভোগান্তি নিরসনে কেউ এগিয়ে আসে নাই ।

ক্ষোভের সঙ্গে স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, এই রাস্তা দিয়ে তিন গ্রামের প্রায় পাঁচ হাজার পরিবারের মানুষ চলাচল করে প্রতিনিয়ত।
সারা দেশে বিভিন্ন রাস্তা ঘাট পাকাকরণ হলেও মাটি কেটেও কেউ আমাদের রাস্তা নির্মাণ করে দেয়নি।
ধান-চাল সয়াবিন বাদামসহ বিভিন্ন কৃষিপণ্য ও মালামাল পরিবহনে আমাদের অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
বর্ষা মৌসুমে হাটুপানি ভেঙে ৫ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিয়ে যাওয়া আসা করে চরাঞ্চলের এই মানুষেরা। গ্রামের কেউ অসুস্থ হলে তাকে কাঁধে করে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়।
আমরা দীর্ঘদিন ধরে জনপ্রতিনিধিদের জানালেও কেউ এগিয়ে আসেনি। বাধ্য হয়ে গ্রামবাসী মিলে ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন হাওলাদার নিজের অর্থায়নে রাস্তা নির্মাণ এর কাজে হাত দিয়েছেন ।

রাস্তা নির্মাণ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাষ্টার আলতাফ হোসেন হাওলাদার বলেন।
দীর্ঘদিন থেকে এই রাস্তায় চলাচল করলেও রাস্তাটি পুরাপুরী নির্মাণ করার জন্য মেম্বার-চেয়ারম্যানের কাছে ধর্না দিয়েও কোনো আশার আলো দেখেনি গ্রামবাসী। এই রাস্তা আমার নিজ অর্থায়নে ও জনগণের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় নির্মাণ করে দিতে হবে।
এই জন্য গ্রামের সবার সহযোগিতা নিয়েই কাজ শুরু করেছি। রাস্তার কাজে ব্যায় হবে প্রায় অর্ধকোটি টাকা। রাস্তাটি হাজিমারা থেকে কানিবগার চর পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছি। সাথে তিনটি খাল ও রয়েছে। এই তিনটি খালে কালবার্ড ও দেওয়া হবে। আমি যখন চরকাচিয়া ও কানিবগার চর আসার পর এলাকায় মানুষ আমাকে অনুরোধ করে রাস্তায় টি তৈরি উদ্যোগ নেওয়ার জন্য । এই রাস্তাটি বরিশাল জেলার মেহেন্দী গঞ্জ উপজেলার গোবিন্দপুর ইউপির সাথে সংযোগ করবো  আশা রাখি।এস.এম/দেশজর্নাল

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়