সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন স্থানে ইস্তেস্কার নামাজ আদায়

মুজাহিদুল ইসলাম ,বিশেষ প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে সারা দেশ। এই গরমে মানুষের জীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। অনাবৃষ্টিতে নষ্ট হচ্ছে ফসল। এমন অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইসলাম ধর্মের রীতি অনুযায়ী বৃষ্টির জন্য ইসতিসকার নামাজ ও বিশেষ মোনাজাত করেছেন লক্ষ্মীপুরের ধর্মপ্রান মুসল্লিরা।

টানা খরায় পুড়ছে লক্ষ্মীপুরে। চারিদিকে বৃষ্টির জন্য হাহাকার করছে। বৃষ্টি না হওয়ায় নষ্ট হচ্ছে ফসল। নেমে গেছে পানির স্তর। দেখা দিয়েছে তীব্র পানি সংকট। বাতাসে আর্দ্রতা কমে গেছে। আকাশে মেঘ নেই ও বৃষ্টির কোনো পূর্বাভাসও নেই। বুধবার(২৪ এপ্রিল) লক্ষ্মীপুরে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর আদর্শ সামাদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃষ্টির জন্য সালাতুল ইসতিসকা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

এবং রায়পুর উপজেলার রায়পুর নতুন বাজার ঈদগাহ মাঠে সালাতুল ইসতিসকা নামাজ ও বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয় এতে ইমামতি করেন রায়পুর আলিয়া মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা মন্জুর হোসাইন ।

এছাড়াও লক্ষ্মীপুর জেলার চন্দ্রগন্জ উপজেলা  কর্তৃক আয়োজিত আলাদাদপুর রাব্বানিয়া ফাযিল মাদ্রাসা মাঠে  বৃষ্টির জন্য সালাতুল ইসতিসকা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

নামাজে অংশ নেওয়া মুসল্লিরা বলেন, অতি তীব্র তাপদাহে লক্ষ্মীপুরে বিভিন্ন স্হানে  জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। গরমের তীব্রতা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) তার জীবদ্দশায় এরকম ইসতিসকার সালাত আদায় করতেন। আমরাও ইসতিসকার নামাজে আজ অংশ নিয়ে আল্লাহ কাছে বৃষ্টি ও গরমের তীব্রতা নিরসনের জন্য দোয়া কামনা করেছি।

এস.এম/দেশ জার্নাল 

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----