সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূর পর্নোগ্রাফি মামলায় ব্যবসায়ীর ৫ বছরের কারাদণ্ড

 

নুরুল আমিন ভূঁইয়া দুলাল ,নিজস্ব প্রতিবেদক

লক্ষ্মীপুরে গোপন ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে এক গৃহবধূকে কুপ্রস্তাবের ঘটনায় আদালতে দায়েরকৃত পার্নোগ্রাফি মামলায় শাহিন চৌধুরী মিঠু (৪০) নামে একজন টেইলার্স ব্যবসায়ীর ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন লক্ষ্মীপুর জেলা আদালত। একইসঙ্গে তার ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আজ সোমবার (১৪ আগস্ট) দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন।
এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর জেলা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) জসিম উদ্দিন বলেন, আসামি মিঠুর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তিনি জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছেন। রায়ের সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।
আদালত সূত্রে জানা যায় যে দণ্ডপ্রাপ্ত মিঠু লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড সমসেরাবাদ এলাকার মো. শাহজাহানের ছেলে। তিনি পেশায় একজন টেইলার্স (দর্জি) ব্যবসায়ী।
এ বিষয়ে আদালত ও এজাহার সূত্র জানায়, ভিকটিম গৃহবধূ (৩১) সদর উপজেলার বাঙ্গাখাঁ ইউনিয়নের জকসিন বাজার এলাকার এক ব্যবসায়ীর স্ত্রী।
আরে জানা যায় ২০২১ সালের আগস্ট মাস থেকে তার বড় মেয়ে মিঠুর কাছে দর্জির কাজ শিখতেন সেই সুবাধে এতে মিঠুর তাদের বাড়িতে আসা-যাওয়া ছিল। এই সুযোগের সূত্র ধরে গৃহবধূর সঙ্গে তার সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে বলে আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় । প্রতিদিনই তারা সামাজিক যোযোগ মাধ্যমে ভিডিও কলে কথা বলতেন। এক সময় মিঠু তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেন। এরইমধ্যে ভিডিও কলে কথা বলার সময় তিনি গৃহবধূর আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করে রাখেন।

জানা যায় পরে গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে গোপন ছবি ও ভিডিওর কথা বলে মিঠু তাকে কুপ্রস্তাব দেয় ও কক্সবাজার যাওয়ার জন্যও প্রস্তাব দেন। এতে গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় ছবি ও ভিডিওগুলো আত্মীয়-স্বজনসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকেন তিনি। পরে এই ঘটনাটি গৃহবধূ তার স্বামীসহ স্বজনদের জানান।
এই ঘটনার বিষয়ে সবার সম্মতিতে ঘটনাটি র্যাব-১১ টহল টিমকে জানালে ২০২১ সালের ৪ নভেম্বর দুপুরে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সমসেরাবাদ এলাকার হক মঞ্জিলের সামনে থেকে মিঠুকে আটক করে র্যাব। পরে র্যাব তাকে সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করে। একইদিন এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে মিঠুর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।

এদিকে উক্ত ঘটনা কে কেন্দ্র করে ২০২২ সালের ৩০ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইয়াকুব আলী আদালতে মিঠুর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত আজ রায় প্রদান করেন।

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়