সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

রায়পুরে বৃদ্ধ কৃষককে পেটালেন ইউপি সদস্য, ফেলে দিলেন খালে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার ৬নং কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যের (মেম্বার) দোকানে মালামাল না কেনায় মো. বেল্লাল হোসেন পাটওয়ারী (৬৫) নামের এক বৃদ্ধকে মারধর করে খালে ফেলে দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার (২৯ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের দারোগাগো পুলের গোড়া নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মো. আরিফুর রহমান (৩৮) ওই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।

কেরোয়া ইউনিয়নের জোড়পোল নামক স্থানে আরিফুর রহমানের রড, সিমেন্ট, ইট, বালু ও ফার্নিসার দোকানের ব্যবসা রয়েছে। বৃদ্ধের ভাতিজার ভবন নির্মাণের জন্য মেম্বারের দোকান থেকে রড, সিমেন্ট না কেনায় তিনি এমন কাণ্ড ঘটান বলে বৃদ্ধের অভিযোগ। তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ওই ঘটনায় তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

কৃষক মো. বেল্লাল হোসেন পাটওয়ারী (৬৫) বলেন, ‘আমার ভাতিজার ভবন নির্মাণ কাজের জন্য রড, সিমেন্ট, ইট ও বালু কিনতে কয়েকদিন ধরে আরিফ মেম্বার আমাকে চাপ প্রয়োগ করে যাচ্ছিলেন। তাঁর দোকান থেকে মালামাল না কেনায় তিনি আমাকে ঘটনাস্থলে পেয়ে মারধর করে রাস্তা সংলগ্ন খালে ফেলে দেন। এতে আমি শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি। ওই ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছি। এর আগেও তিনি অনেকের সাথেই এমন করেছেন। নারী নির্যাতন ও ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন। আমি আমাকে নির্যাতনের উপযুক্ত বিচার চাই।

ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মো. আরিফুর রহমান বলেন, ‘গত সংসদ নির্বাচনে ওই বৃদ্ধকে ভোট দিতে যেতে বললেও তিনি যাননি। আজকেও আওয়ামী লীগ ও সরকারকে নিয়ে বেফাঁস কথাবার্তা বলায় তাঁকে চড়, থাপ্পর দেওয়া হয়েছে। ধাক্কা খেয়ে তিনি খালে পড়ে গেছেন। )মামামাল কেনার বিষয়টি সাজানো।রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিন ফারুক মজুমদার বলেন, ‘কৃষকের লিখিত অভিযোগটি পাওয়া গেছে। বিষয়টি যাচাই করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

দেশ জার্নাল বাংলাদেশ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো।

----- সংশ্লিষ্ট সংবাদ -----

এই সপ্তাহের পাঠকপ্রিয়